লিটন নাকি সৌম্য অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে কে হচ্ছে তামিমের ওপেনিং পার্টনার ! সরাসরি জানিয়ে দিলেন মাশরাফি…

মঙ্গলবার, জুন ১৮, ২০১৯ ৬:৩১ পূর্বাহ্ণ

বিশ্বকাপে নিজের প্রথম ম্যাচ খেলতে নেমেই বাজিমাত লিটন দাসের। অথচ তিনিই কিনা আগের মাঠে গড়ান তিনটি ম্যাচে ছিলেন একাদশে বাইরে। সাম্প্রতিক সময়ে ফর্ম নিয়ে ভাবনা নেই, সমস্যা টিম কম্বিনেশনে। সেই কম্বিনেশন যেন আরও নিখুঁত হল এবার লিটনের ছোঁয়া পেয়ে!

সোমবার (১৭ জুন) টনটনে উইন্ডিজের বিপক্ষে ৭ উইকেট ও ৫১ বল হাতে রেখে জয়ের কারিগর সাকিব আল হাসান ও লিটন দাসের রেকর্ড গড়া। চলতি বিশ্বকাপের সেরা জুটী হওয়ার পাশাপাশি তার আরও কিছু রেকর্ড নতুন করে লিখিয়েছেন।

দলীয় ১৩৩ রানে মুশফিকুর রহিম উইকেট বিলিয়ে দিলে, ক্রিজে আসেন লিটন দাস। আগে থেকেই ক্রিজে ছিলেন সাকিব আল হাসান। বাংলাদেশকে ম্যাচ জিতিয়ে তবেই মাঠ ছেড়েছেন তারা। সাকিব শতক তুলে নিলেও, দলের জয় নিশ্চিত হয়ে যাওয়ায় আর শতকের দেখা পাননি লিটন।

বিশ্বকাপে নিজের ২য় শতক করেন সাকিব। ৯৯ বলে ১৬টি চারের মারে ১২৪ রানের দারুণ ইনিংস খেলেন বিশ্বসেরা অলরাউন্ডার। অপরদিকে ৬৯ বলে ৯৪ রানে অপরাজিত থেকে মাঠ ছাড়েন লিটন। তার ইনিংসে ছিল ৮টি চার ও ৪টি ছয়।

দুর্দান্ত ইনিংস খেলার সাথে জুটি গড়ার রেকর্ড নতুন করে লিখিয়েছেন এই ২ জন। এই বিশ্বকাপে অ্যারন ফিঞ্চ ও স্টিভ স্মিথকে ছাড়িয়ে সেরা জুটির তালিকায় শীর্ষে এখন সাকিব ও লিটনের অপরাজিত ১৮৯ রানের জুটি। অজি ব্যাটসম্যানদের জুটিটি ছিল ১৭৩ রানে। এই তালিকার সেরা ৪ এ আরও একবার নাম আছে সাকিবের। দক্ষিণ আফ্রিকার বিপক্ষে গড়া মুশফিকের সাথে ১৪২ রানের জুটিটি আছে ৪র্থ স্থানে।

বিশ্বকাপের আসরে ৪র্থ উইকেটে বাংলাদেশের সেরা জুটিও এখন সাকিব ও লিটনের। মজার বিষয় হল, এই তালিকার শীর্ষ ৪ জুটিতেই একটি নাম সাকিব আল হাসান। শুধু বিশ্বকাপ না ওডিআই ক্রিকেটেও ৪র্থ বাংলাদেশে এটিই বাংলাদেশের সেরা জুটি। ২০০৬ সালে হাবিবুল বাশার সুমন ও রাজিন সালেহের গড়া অপরাজিত ১৭৫ রানের জুটি টপকে গিয়েছেন সাকিব ও লিটন।

বিশ্বকাপের অভিষেকে লিটনের এই দূর্দান্ত রান কি আবারো পরবর্তী ম্যাচে অস্ত্রেলিয়ার বিপক্ষে তামিমের ওপেনিং সঙ্গী করে দিবে সৌম্যকে সরিয়ে নাকি পাঁচ নম্বর পজিশনের নিজেকে প্রমাণ করবে লিটন ? এঈ ব্যাপারে মাশরাফি বলেন লিটন তার নিজের জায়গাতেই বহাল থাকবে। তাছাড়া ক্রিকেট বিশ্লেষকদের মতে ২০১৯ বিশ্বকাপে পাঁচ নম্বর পজিশনের জন্যই পারফেক্ট।

বিশ্বকাপ ২০১৯ এর সেরা জুটি- ১. সাকিব আল হাসান ও লিটন দাস- বাংলাদেশ- ১৮৯* রান- ৪র্থ উইকেট। ২. অ্যারন ফিঞ্চ ও স্টিভ স্মিথ- অস্ট্রেলিয়া- ১৭৩ রান- ৩য় উইকেট। ৩. অ্যারন ফিঞ্চ ও ডেভিড ওয়ার্নার- অস্ট্রেলিয়া- ১৪৬ রান- ১ম উইকেট। ৪. সাকিব আল হাসান ও মুশফিকুর রহিম- বাংলাদেশ- ১৪২ রান- ৩য় উইকেট।

বিশ্বকাপে ৪র্থ উইকেটে বাংলাদেশের সেরা জুটি- ১. সাকিব আল হাসান ও লিটন দাস- ১৮৯* রান- বিপক্ষ উইন্ডিজ- ২০১৯ বিশ্বকাপ। ২. মুশফিকুর রহিম ও সাকিব আল হাসান- ৮৪ রান- বিপক্ষ ভারত- ২০০৭ বিশ্বকাপ। ৩. ইমরুল কায়েস ও সাকিব আল হাসান- ৮২ রান- বিপক্ষ ইংল্যান্ড- ২০১১ বিশ্বকাপ। ৪. সাকিব আল হাসান ও মোহাম্মদ আশরাফুল- ৫৯* রান- বিপক্ষ বারমুডা- ২০০৭ বিশ্বকাপ।

৪র্থ উইকেটে বাংলাদেশের সেরা জুটি- ১. সাকিব আল হাসান ও লিটন দাস- ১৮৯* রান। ২. হাবিবুল বাশার সুমন ও রাজিন সালেহ- ১৭৫* রান। ৩. সাকিব আল হাসান ও রকিবুল হাসান- ১৬৫ রান ৪. মুশফিকুর রহিম ও নাইম ইসলাম- ১৫৪ রান। ৫. সাকিব আল হাসান ও তামিম ইকবাল, মোহাম্মদ মিঠুন ও মুশফিকুর রহিম- ১৪৪ রান।