লম্পট চাচার লালসা থেকে রক্ষা পেল না কলেজছাত্রী রেশমী, যা বলছে পুলিশ

সোমবার, আগস্ট ৫, ২০১৯ ৮:৪৩ পূর্বাহ্ণ

নাটোরের সিংড়ায় রেশমী খাতুন নামে এক কলেজছাত্রীকে ধ’র্ষণের পর শ্বা’সরোধ করে হ’ত্যা করা হয়েছে।এ ঘটনায় অ’ভিযুক্ত মেয়েটির চাচা শাহাদৎ হোসেনকে আ’ট’ক করেছে পু’লিশ। রবিবার দুপুর আড়াইটার দিকে উপজে’লার ইটালী ইউনিয়নের দেওগাছা গ্রামে এ ঘটনা ঘটে।

নি’হত রেশমী খাতুন স্থানীয় বামিহাল অনার্স কলেজের এইচএসসি দ্বিতীয় বর্ষের ছাত্রী ছিল। তিনি দেওয়াগাছা গ্রামের দিনমজুর আব্দুর রাজ্জাকের মেয়ে। পু’লিশ ও এলাকাবাসী বলছে, উপজে’লার পাকুরিয়াগ্রামে রেশমী খাতুনের বড় দাদা মা’রা যান। রেশমীর বাবা-মাসহ বাড়ির সবাই সেই জানাজায় যান। এসময় রেশমী খাতুন বাড়িতে একাই অবস্থান করছিলেন।

এই সুযোগে চাচা শাহাদৎ হোসেন ভাতিজী রেশমী খাতুনকে ধ’র্ষণ করে মাটির ঘরের দোতলায় রেলিংয়ের ওপর শ্বা’সরোধ করে হ’ত্যা করেন। পরে রেশমীর ছোট বোন স্থানীয় দেওগাছা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের পঞ্চম শ্রেণির ছাত্রী জান্নাতি খাতুন বাড়িতে এসে বড় বোনের লা’শ দেখতে পায়। পাশেই চাচাকে দেখে সে চি’ৎকার শুরু করে। পরে এলাকাবাসী চাচা শাহাদৎ হোসেনকে আ’ট’ক করে পু’লিশে দেয়।

নি’হত রেশমী খাতুনের মা সোনাভান বেগম অ’ভিযোগ করে বলেন, আমা’র মেয়েকে ধ’র্ষণ করে হ’ত্যা করেছে ঘা’তক শাহাদৎ হোসেন।

সিংড়া থানার ওসি মনিরুল ইস’লাম বলেন, প্রাথমিকভাবে ধারণা করা হচ্ছে- রেশমীকে শ্বা’সরোধ করে হ’ত্যা করা হয়েছে। আর শাহাদৎ হোসেনকে আ’ট’ক করা হয়েছে।