যে সব দায় এড়াতে পারেন না কাদের

বৃহস্পতিবার, অক্টোবর ৮, ২০২০ ১২:১৪ অপরাহ্ণ

যে সব দায় এড়াতে পারেন না কাদের-আওয়ামী লীগের সাধারন সম্পাদক ওবায়দুল কাদের। জাতির পিতা যে দলের সাধারন সম্পাদক পদে ছিলেন, ওবায়দুল কাদের সেই দলে টানা দ্বিতীয়বারের মতো সাধারন সম্পাদক হয়েছেন। সাধারন সম্পাদক হিসেবে কাদের কতটা সফল বা ব্যর্থ সে বি’চার করবে দলের নেতা-কর্মীরা এবং ইতিহাস।

কিন্তু সাম্প্রতিক সময়ে বেশ কিছু ঘ’টনার দা’য়, আওয়ামী লীগের সাধারন সম্পাদক এ’ড়াতে পারেন না বলেই মনে করেন রাজনৈতিক বিশ্লেষকরা। দা’য়ের কথা আসছে, কা’দেরের ব’ক্তব্যের সূত্র ধরেই। সম্প্রতি ওবায়দুল কাদের ধর”ন প্রসঙ্গে বলেছেন ‘এর দায় সরকার এড়াতে পারেনা। তার এই বক্তব্য লুফে নিয়েছে বিএনপিসহ বি’রোধী দল।

বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেছেন ‘এই দা’য় নিয়ে সর’কারের প’দত্যাগ করা উ’চিত। ওবায়দুল কাদের কেন, কোন বি’বেচনায় ঐ মন্তব্য করেছেন, সেটির সঠিক ব্যাখা তিনিই দিতে পারবেন। কিন্তু দলের সাধারন সম্পাদক হিসেবে অনেক দা’য়ই তিনি এড়াতে পারে না বলেই মনে করেন আওয়ামী লীগের নেতা কর্মীরা। যেমন:

১. অ’নুপ্রবেশকারীদের দায় : আওয়ামী লীগের সাধারন সম্পাদক হলেন দলের অ’ন্যতম চালিকা শক্তি। দলের ভালো, ম’ন্দের দায় সিংহভাগই তারই। ওবায়দুল কাদের যখন সাধারন সম্পাদক তখনই আওয়ামী লীগের প্রধান মাথাব্যাথা হয়ে উঠেছে অ’নুপ্রবেশকারী।

এনিয়ে স্বয়ং আওয়ামী লীগ স’ভাপতি পর্যন্ত কথা বলেছেন। তিনি অ’নুপ্রবেশকারীদের তালিকা দিয়ে তাদের বি’রুদ্ধে ব্যবস্থা নিতে বলেছেন। কিন্তু ঐ সব তা’লিকাভুক্ত অ’নুপ্রবেশকারীদের বি’রুদ্ধে ব্য’বস্থা নেয়া হয়নি। সাধারন সম্পাদক এই দা’য় এড়াবেন কিভাবে?

২. বি’তর্কিতদের সঙ্গে ছবি:আওয়ামী লীগের পরিচয় ব্যবহার করে যারা অ’পকর্ম করেছে, তাদের প্রায় সবার সঙ্গেই ওবায়দুল কাদেরের ছবি পাওয়া যায় সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে। দলের সাধারন সম্পাদক একজন ব্যক্তির স’ম্পর্কে না জেনেই তার সঙ্গে ছবি তো’লেন কিভাবে? এই দা’য় কি তার নয়?

৩. কমিটি দিতে ব্য’র্থতা : আওয়ামী লীগের অঙ্গ ও সহযোগী সংগঠন গু’লো কমিটিহীন দীর্ঘদিন। ক’মিটিতে যেন কোন বি’তর্কিত ব্য’ক্তিদের না রাখা হয়, সেজন্য আওয়ামী লীগ সভাপতিই এখন বিষয়টি দেখছেন। অথচ এটি সাধারণ সম্পাদকের প্রধান কাজের একটি। কমিটি না দিতে পারার ব্য’র্থতার দা’য় কিভাবে এড়াবেন দলের সাধারন সম্পাদক।

৪. অ’নিয়মের বি’রুদ্ধে নীরবতা : আওয়ামী লীগের পরিচয় ব্যবহার করে যারা দূ’র্নীতি, অ’নিয়ম করছে তাদের বি’রুদ্ধে ব্য’বস্থা নিতে পারেননি ওবায়দুল কাদের। গত বছর যখন যু’বলীগের কিছু নেতার বি’রুদ্ধে ক্যা’সিনো বানি’জ্যের অ’ভিযোগ উঠেছিল, তার মাত্র ক’দিন আগেই ওবায়দুল কাদের তাদের অনুষ্ঠানে ব’ক্তৃতা দিয়েছেন। দলের একজন সাধারন স’ম্পাদককে চোঁ’খ কান খোলা রাখতে হয়। তাকে জানতে হয় দলে কে কি’রকম। অথচ এসব ব্যাপারে ওবায়দুল কাদের উদাসীন।

৫. বি’তর্কিত কর্মকান্ড : জাতীয় শোক দিবসে ওবায়দুল কাদেরের ফটো সেশনের ছবি দেখা গিয়েছিল ফেসবুকে। নেতা কর্মীদের তীব্র প্রতিক্রিয়ার মুখে ঐ ছবি গুলো না’মিয়ে ফেলা হয়। বিভিন্ন সময়ে নানা বিষয়ে তার বক্তব্য নিয়েও দলে প্রতিক্রি’য়া দেখা যায়। এসব ছাড়াও আরো কিছু বিষয় আছে, যার দায় আওয়ামী লীগের সাধারন স’ম্পাদকেই নিতে হবে। এই দায় কিভাবে এড়াবেন কাদের? banglainsider