মে’য়ের সাথে অ’ন্তর’ঙ্গ ছবি, ঘ’নিষ্ট বন্ধুর হা’তে মিনহাজ খু’ন

শুক্রবার, অক্টোবর ২, ২০২০ ১:১৩ অপরাহ্ণ

ঘ’নিষ্ট বন্ধুর হা’তে মিনহাজ খু’ন-বগুড়ার শেরপুরে অটোরিক্সা চালক মিনহাজকে (২২) খু’নের পর গু’ম ক’রে রাখা ম’রদেহ উ’দ্ধার ক’রেছে পু’লিশ। ছি’নতাই না’টক সা’জাতে গি’য়ে গ্রে’ফতার হওয়া খু’নি ফ’জলে রা’ব্বির দেখা’নো ম’তে পু’লিশ শে’রপুর উপজেলার সু’ঘাট ইউনিয়নের জোড়গাছা গ্রা’মের একটি ধান

ক্ষে’তে গু’ম করে রা’খা ম’রদেহ উ’দ্ধার করে। বৃহস্পতিবার (১ অক্টোবর) দুপুর ১টায় গ্রে’ফতারকৃত ফ’জলে রা’ব্বিকে নিয়ে অ’ভিযান চা’লিয়ে মিনহাজের ম’রদেহ উ’দ্ধার ক’রে। রাব্বি সি’রাজগঞ্জ ইসলামিয়া ডিগ্রী কলেজের ই’তিহাস বি’ষয়ে অ’নার্স শেষ ব’র্ষে পড়ু’য়া ছাত্র। পু’লিশ জা’নান, দু্ই বন্ধু তা’দের খুব

ভা’ল সম্প’র্ক ছিল। মি’নহাজ রা’ব্বিকে খুব বি’শ্বাস ক’রত। তারা এ’কত্রে অ’নেক জা’য়গায় গিয়েছে। এরই ধা’রাবাহিকতায় কা’জিপুর থা’নার সো’নামুখীতে এক মে’য়ের কা’ছে মি’নহাজ এবং রা’ব্বি গি’য়েছিল। মি’নহাজ ঐ মে’য়ের সাথে রা’ব্বির অ’ন্তরঙ্গ অ’বস্থার এ’কটি ছ’বি তু’লে। এ ছবি নিয়ে মিনহাজ

রা’ব্বিকে ব্ল্যা’কমেল ক’রে টাকা নিত। রাব্বি বি’বাহিত কিন্তু বে’কার, তার কিছু টাকার প্রয়োজ হয়। টাকার জন্য সে মিনহাজকে হ’ত্যার পরি’কল্পনা ক’রে। এরই ধারা’বাহিকতায় সে গত ২৭ সেপ্টেম্বর শেরপুর শেরুয়া বটতলার সুম’নের অ’টোরিকশা মে’রামতের দো’কানে এসে একটি পু’রাতন অ’টোরিকশা বি’ক্রয়

করলে তা’রা কি’নবে কিনা তা জা’নতে চায়। সুমন কি’নতে চাইলে রাব্বি সেদিন চলে যায় এবং মিনহাজকে খু’ন ক’রে তা’র অটোরিকসা বি’ক্রির পরিকল্পনা করে। প’রিকল্পনা অনুযায়ী রাব্বি ২৯ সেপ্টেম্বর দুপুরে বিশ্বহরিগাছা বাজার থেকে ঘু’মের ট্যা’বলেট কি’নে। এরপর বিকেল পৌনে ৪টায় তার মোবাইল থেকে সিম

খুলে মো’বাইল ব’ন্ধ করে যাতে ট্র্যা’কিং করে তা’কে ধ’রা না যায়। সে বিকেল সাড়ে ৪টায় ধুনটে এক ঔ’ষধের দো’কানদারের মোবাইল থেকে মি’নহাজকে ডেকে নেয়। এরপর বিভিন্ন এলাকা ঘুরে রাত ৮টায় শেরপুর উপজেলার সুঘাট ইউনিয়নের জোরগাছা এলাকায় পৌছে। সেখানে দোকান থে’কে স্পিড (কো’ল্ড ড্রিংকস) কি’নে নেয়।

এরপর এ’কজনের বা’ড়িতে অটোরিকশা রেখে ধা’ন ক্ষেতের ভিতর দিয়ে মাঠের অন্য প্রা’ন্তে যাওয়ার কথা বলে। এক পর্যায়ে সে মিন’হাজকে ঘুমের ট্যা’বলেট মি’শানো স্পিড খাওয়ায়। এরপর ক্ষেতের আইলে ১০ মিনিট বসে থাকে যাতে মিনহাজ ঘু’মে আচ্ছন্ন হয়ে পড়ে। যখন মিনহাজ ঘু’মে টলা’নো শুরু করে তখন রাব্বি আ’চমকা তাকে চা’কু দিয়ে আ’ঘাত করে।

মিনহাজ চিৎকার ক’রলে রাব্বি ডান হা’ত দিয়ে তার মু’খ চে’পে ধরে। মিনহাজ রা’ব্বির আ’ঙুলে কা’মড় দে’য়। রাব্বি তখন চা’কু দি’য়ে মিনহাজের মু’খে এ’লোপাথাড়ি আ’ঘাত করে তার মৃ’ত্যু নিশ্চি’ত করে। পরে রাব্বি চাকু এবং মি’নহাজের মোবাইল ঘট’নাস্থলের পাশে ফে’লে দিয়ে অটো’রিকশা কা’ছে আ’সে। এরপর অটো’রিকশা নিয়ে শেরপুর বটতলা সু’মনের দোকানে আসে।

রাতে সুমন অটোরিকশা কি’নতে অ’স্বীকার করায় সে সু’মনের দোকানে ক’র্মরত মিরাজকে সাথে নিয়ে অ’টোরিকশা বি’ক্রির চেষ্টা করে। বিক্রি না হওয়ায় অ’টোরিকশাটি ধুনট থা’নার আওলাকান্দির একটি নির্জ’নস্থানে ফে’লে রাব্বি শেরপুর হাস’পাতালে ভর্তি হয়। ৩০ সেপ্টেম্বর সকালে রাব্বি ৯৯৯ এ ফোন দিয়ে সে এবং অ’টোরিকশা চালক মি’নহাজ ছি’নতাই এর ক’বলে পড়েছিল

এবং মি’নহাজকে তার পূ’র্ব প’রিচিত শ’ত্রুরা ধ’রে নিয়ে গেছে বলে অ’ভিযোগ করে। তার এ রকম অ’ভিযোগ ত’দন্ত করতে গিয়ে অ’তিরিক্ত পু’লিশ সুপার শেরপুর সার্কেল মোঃ গাজিউর রহমানের নেতৃত্বে শেরপুর এবং ধুনট থানা পু’লিশের ক’য়েকটি টি’ম কাজ শুরু করে। পু’লিশ সুপার মোঃ আলী আশ’রাফ ভূঞা বিপিএম (বার) স্যারের নির্দেশে রাব্বিকে নিয়ে শেরপুর সার্কেল অ’ফিসার ঘটনাস্থলে যায়।

রাব্বির কথাবার্তা ‘অসংলগ্ন মনে হয়। পরে ব্যাপক ‘জিজ্ঞাসাবাদের মুখে রাব্বি মি’নহাজকে হ’ত্যা ক’রে লা’শ জো’ড়গাছার ধা’নের ক্ষে’তে ফে’লে রাখা’র কথা স্বী’কার করে। তাকে নিয়ে পু’লিশ সু’পার বগুড়া মোঃ আলী আশরাফ বিপিএম (বার) ম’হোদয়ের নেতৃত্বে অ’তিরিক্ত পু’লিশ সুপার (অপরাধ) মোঃ আব্দুর রশিদ, অতিরিক্ত পু’লিশ সুপার শেরপুর সার্কেল মোঃ গাজিউর রহমান, শেরপুর থানা পুলি’শ পরিদর্শক

(তদন্ত) ও ভারপ্রাপ্ত ওসি আবুল কালাম আজদসহ শেরপুর থা’নার ফো’র্সের সহা’য়তায় উপস্থিত হাজার হাজার লোক এবং সাং’বাদিকগণের সাম’নে আসামী রাব্বির দে’খানোমতে আজ বৃহস্পতিবার বেলা সোয়া ১২টায় শেরপুরের জো’ড়গাছা ধান ক্ষেত থেকে মিনহাজের মৃ’ত দে’হ উ’দ্ধার করে। লা’শ পো’স্ট ম’র্টেমের জন্য শহীদ জি’য়া হাস’পাতালে প্রে’রণ করা হয়েছে। এ রি’পোর্ট লেখা প’র্যন্ত মা’মলা হয়নি, মা’মলা প্রক্রি’য়াধীন।bd24live