মুখের দুর্গন্ধ থেকে জানুন আপনি কি রোগে আক্রান্ত

সোমবার, আগস্ট ৫, ২০১৯ ১০:৫৫ পূর্বাহ্ণ

মুখ থেকে যদি দুর্গন্ধ হয়, নিজের কাছে খুব লজ্জা হয়। যদিও অনেক সময় ঠিকমত ব্রাশ, কুলকুচি করার পরও এই দুর্গন্ধ যায় না। এক এক জনে মুখের দুর্গন্ধ ভিন্ন ভিন্ন হত পারে। মুখের দুর্গন্ধ রোগের লক্ষণও হতে পারে।

এক এক রোগের জন্য এক এক রকমের দুর্গন্ধ আসে মুখ দিয়ে। তাই কোন ধরণের দুর্গন্ধ হলে কোন রোগে আক্রান্ত বুঝে নিন। আর সময় মত ডাক্তারের পরামর্শ নিন। তাহলে এই বিরক্তিকর আর লজ্জাকর পরিস্থিতি থেকে মুক্তি পাবেন দ্রুত।

১. যদি আপনার নিঃশ্বাসে আঁশটে গন্ধ হয় তাহলে বুঝে নেবেন আপনার কিডনি সমস্যা হয়েছে। কিডনিতে সমস্যা হলে এবং কিডনি সঠিকভাবে কাজ না করলে নাইট্রোজেন উৎপন্ন হয় যা এই ধরনের দুর্গন্ধের জন্য দায়ী।

২. যদি আপনার নিঃশ্বাসে পচে যাওয়া মাংসের মতো দুর্গন্ধ পান তাহলে বুঝে নেবেন আপনার টনসিলের সমস্যা হয়েছে। টনসিলের কারণে সালফার উৎপন্নকারী ব্যাকটেরিয়া অধিক জন্ম নিচ্ছে যার কারণেই নিঃশ্বাসে এই ধরনের দুর্গন্ধের সৃষ্টি হচ্ছে।

৩. যদি মুখের দুর্গন্ধ অ্যামোনিয়া ধরনের হয় অর্থাৎ কিছুটা প্রসাবের মতো গন্ধ হতে থাকে তাহলে সতর্ক হয়ে যান। কারণ এই ধরনের দুর্গন্ধ প্রমাণ করে আপনার টাইপ-১ ডায়বেটিসের সমস্যা হয়েছে। এই গন্ধের মূল কারণ হচ্ছে ডায়বেটিসের কারণে দেহে ইনসুলিনের অভাব।

৪. যদি আপনার নিঃশ্বাসে দুর্গন্ধ পান তাহলে বুঝে নেবেন আপনার সাইনাসে সমস্যা রয়েছে। এর কারণ হচ্ছে নাকে ও গলায় মিউকাস জমে থাকা।

৫. যদি টক দুধের মতো টক টক ধরনের গন্ধ পান আপনার নিঃশ্বাসে আপনার খাবারে প্রোটিনের মাত্রা অতিরিক্ত বেশি হয়েছে। এর কারণ হচ্ছে কিটোনের ভাঙন।

৬. যদি আপনার নিঃশ্বাসে দিনের প্রত্যেকটা সময় সকালে ঘুম থেকে উঠার পর যেমন গন্ধ থাকে তেমন গন্ধ পান তাহলে আপনার ‘জেরোস্টোমিয়া’ অর্থাৎ মুখ শুকিয়ে যাওয়ার সমস্যা রয়েছে। মুখে ভেতরের স্যালিভা শুকিয়ে গেলে ব্যাকটেরিয়া উৎপন্ন হতে থাকে যা এই ধরনের দুর্গন্ধের সৃষ্টি করে।

৭. খুবই বাজে ধরনের দুর্গন্ধ এবং বাথরুমের মতো গন্ধ পেলে বুঝে নেবেন আপনার মাড়িতে ইনফেকশন হয়েছে। সুতরাং সাবধান। শারীরিক সমস্যা যদি বুঝে নিতে পারেন নিঃশ্বাসের দুর্গন্ধ থেকে, তাহলে দেরি না করে ডাক্তারের পরামর্শ গ্রহণ করুন।