পাপনের সন্দেহের তীর সাবেরের দিকে: দুইজনের দ্বন্দ্বই কি ক্রিকেটের জন্য অশনি সংকেত?

মঙ্গলবার, অক্টোবর ২২, ২০১৯ ১:৩২ অপরাহ্ণ

গতকাল বাংলাদেশ ক্রিকেট দলের ক্রিকেটাররা এক অভিনব প্রতিবাদ করেছে। তারা ১১ দফা দাবিতে সব ধরনের ক্রিকেট থেকে নিজেদেরকে গুটিয়ে নেওয়ার ঘোষণা দেন। তার ২৪ ঘণ্টা পর আজ বাংলাদেশ ক্রিকেট কন্ট্রোল বোর্ডের সভাপতি নাজমুল হাসান পাপন এক সংবাদ সম্মেলনের

মাধ্যমে ঘোষণা করেন যে এটা ক্রিকেটের বিরুদ্ধে একটা ষ’ড়য’ন্ত্র। কোনো নির্দিষ্ট মহলের ইঙ্গিতে ক্রিকেটারদের এই আন্দোলনে নেওয়া হয়েছে। একজন, দুইজন ক্রিকেটার ছাড়া এই আন্দোলনের সঙ্গে কেউ জড়িত নন। তারা জানেও না যে কি হচ্ছে।

ভারত সফরের আগে এই ঘটনা ঘটানো হচ্ছে, অর্থাৎ এর পিছনে অন্যরকম কোনো উদ্দেশ্য রয়েছে। একটি মহল এটি নিয়ে কাজ করছে।

প্রায় ৪০ মিনিটের এই সংবাদ সম্মেলনে পাপন একটিবারও সাবের হোসেন চৌধুরীর নাম না নিলেও বিভিন্ন বক্তব্যের মধ্যে স্পষ্ট বোঝা যাচ্ছে যে উনি সাবের হোসেনের দিকেই সন্দেহের আঙুল ‍তুলেছেন।

দীর্ঘদিন ধরেই সাবের হোসেন চৌধুরীর সঙ্গে নাজমুল হাসান পাপনের প্রকাশ্য বিরোধ চলছে। দুজন দুজনের প্রকাশ্য সমালোচকও বটে। সাবের হোসেন তার সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে পাপনকে বাংলাদেশের ক্রিকেট ধ্বংসের জন্য দায়ী করেছেন।

অন্যদিকে পাপন সাবের হোসেন চৌধুরীকে ক্রিকেটের সমস্ত তৎপরতা থেকে দূরে সরিয়ে রেখেছেন। এই দুইজনই আবার শাসক দলের এমপিও বটে। এই দুইজনের দ্বন্দ্বই কি তবে ক্রিকেটের জন্য অশনি সংকেত?সূত্র:বাংলাইনসাইডার