নতুন আইসিসি র‍্যাংকিং স্মিথ স্টোকসদের পিছনে ফেলে শীর্ষে রাজত্ব মুশফিকের

মঙ্গলবার, মার্চ ১০, ২০২০ ৪:৫৮ পূর্বাহ্ণ

একদিনের আন্তর্জাতিক ম্যাচে বাংলাদেশের হয়ে শীর্ষ স্থানে অবস্থান করছেন মুশফিক এবং মেহেদী মিরাজ। ব্যাটিংয়ে ইংল্যান্ডের জস বাটলারের সাথে সমান পয়েন্ট নিয়ে ২০তম স্থানে অবস্থান করছেন মুশফিকুর রহিম।

বোলিংয়ে ১২তম স্থানে অবস্থান করছেন তরুণ অফ স্পিনার মেহেদী হাসান মিরাজ। গতকাল প্রকাশিত আইসিসির র‍্যাঙ্কিং তালিকা এই দুজনের নাম এবং স্থান নিশ্চিত করে।

মুশফিকুর রহিম গত কয়েক বছর ধরে বাংলাদেশের ব্যাটিং স্তম্ভ হিসেবে কাজ করে আসছেন। ধারাবাহিকতার দরুন ‘মিস্টার ডিপেন্ডেবল’ তকমাও পেয়েছেন।

তাতেই দেশের হয়ে ব্যাটিংয়ে শীর্ষ স্থানে অবস্থান করছেন মুশফিকুর রহিম।অস্ট্রেলিয়ার সাবেক কাপ্তান স্টিভেন স্মিথ, ইংল্যান্ডের স্টোক্স, মরগানও তালিকায় মুশির চেয়ে পিছিয়ে আছেন। মুশফিকের ঠিক ৪ ধাপ পরে অবস্থান করছেন বাংলাদেশের স্থায়ী ওপেনার তামিম ইকবাল। তাছাড়া শীর্ষ ৫০ এ লিটন দাস ৪১ এবং সৌম্য সরকার যথারীতি ৪৩তম স্থানে জায়গা করে নিয়েছেন।

মেহেদী হাসান মিরাজ বাংলাদেশ দলের নিয়মিত মুখ। সংক্ষিপ্ত সংস্করণে বাদ পড়লেও নিয়মিত টেস্ট এবং ওয়ানডে ম্যাচ খেলছেন। অলরাউন্ডার খ্যাত মেহেদী মূলত দলের অফ স্পিনারের দায়িত্ব পালন করেন।

নিয়মিত উইকেট না পেলেও কিপটে বোলিংয়ের ধারাবাহিকতা এগিয়ে রাখছে মিরাজকে। ধারাবাহিকতায় নিজেকে প্রমাণ করেছেন। বোলিংয়ে দলের হয়ে শীর্ষ স্থানে অবস্থান করছেন। বোলিংয়ে শীর্ষ ২০ জনের তালিকায় ১২তম স্থানে অবস্থান করছেন মেহেদী হাসান মিরাজ।

ঠিক এক ধাপ উপরে রয়েছেন টি-টোয়েন্টির শীর্ষ বোলার রশিদ খান। ভারতের উইকেট টেকিং বোলার যুযবেন্দ্র চাহালও আছেন মেহেদী থেকে কয়েক ধাপ পিছিয়ে।

মেহেদীর ঠিক ৪ ধাপ পিছনে অবস্থান করছেন মোস্তাফিজুর রহমান। বোলিংয়ের শীর্ষ ৫০ এ বিদায়ী কাপ্তান মাশরাফি ৪৭ এবং সাইফুদ্দিন ৫০তম স্থানে নিজেদের নাম লিখিয়েছেন।

প্রসঙ্গত, গত জিম্বাবুয়ে সিরিজে মুশফিকুর রহিম দুই ম্যাচে এক ফিফটিসহ ৭৪ রান অর্জন করেন। পাশাপাশি তিন ম্যাচে ২৩ ওভারে এক মেইডেনসহ ৩টি উইকেট আদায় করেন মেহেদী মিরাজ। তাতেই দেশের হয়ে শীর্ষ তালিকায় অবস্থান করছেন দুই ‘ম’।