চাঁদা না দেওয়ায় বাস নিজের নিয়ন্ত্রণে নিয়ে পরিবহন কর্মচারীদের মা’রধর, যা ঘটল সেই ছাত্রলীগ নেতার ভাগ্যে

মঙ্গলবার, সেপ্টেম্বর ১৭, ২০১৯ ৭:৩৬ পূর্বাহ্ণ

চাঁদা না দেওয়ায় পাঁচটি বাসের নিয়ন্ত্রণ নেওয়া ঢাকা মহানগর উত্তর ছাত্রলীগ সহসভাপতি মো. আরিফুল ইসলাম আরিফকে (৩০) ছাত্রলীগ থেকে বহিষ্কার করা হয়েছে। গতকাল সোমবার রাতে বাংলাদেশ ছাত্রলীগ ঢাকা মহানগর উত্তরের সভাপতি মো. ইব্রাহিম হোসেন ও সাধারণ সম্পাদক মো. সাইদুর রহমান হৃদয়ের স্বাক্ষর সম্বলিত এক প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়েছে।

বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়েছে, ‘বাংলাদেশ ছাত্রলীগ ঢাকা মহানগর উত্তরের সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদকের এক জরুরি সিদ্ধান্ত মোতাবেক জানানো যাচ্ছে যে, ঢাকা মহানগর ছাত্রলীগ উত্তরের সহসভাপতি আরিফুল ইসলাম আরিফ (মিরপুর কলেজ) এর বিরুদ্ধে দলীয় গঠনতন্ত্র ও নীতি-আদর্শ পরিপন্থী ক’র্মকাণ্ডে জড়িত থাকার অভিযোগ প্রমাণিত হওয়ায় সংগঠনের সকল কার্যক্রম থেকে অব্যাহতি দেওয়া হলো।’

এর আগে চাঁ’দাবাজির অভিযোগে গত শনিবার রাতে রাজধানীর মিরপুরের লাভ রোড এলাকা থেকে আরিফকে গ্রে’প্তার করে পু’লিশ। প্রজাপতি পরিবহন নামে একটি বাস কোম্পানির কাছে মাসে ২০ হাজার টাকা চাঁদা দাবি করেছিলেন এ ছাত্রলীগ নেতা। চাঁদা না দেওয়ায় শনিবার রাতে ওই কোম্পানির পাঁচটি বাসের সব যাত্রী নামিয়ে দিয়ে সেগুলো নিজেদের নিয়ন্ত্রণে নিয়ে পরিবহনের কর্মকর্তা-কর্মচারীদের মা’রধর করে আরিফ ও তার ক্যা’ডাররা। এ সময় তারা বাসের চালক ও সহকারীদের হু’মকি দেন, চাঁদা না দিলে কোনো বাসের চাকা ঘুরবে না।

এ ঘটনায় শনিবার রাতেই মিরপুর মডেল থানায় মা’মলা (নম্বর-৩৯) করেন প্রজাপতি পরিবহন রোড ইনচার্জ মো. তানজিল। মা’মলায় ছাত্রলীগ নেতা আরিফুল ইসলাম ছাড়াও আ’সামি করা হয় অচেনা আরও ১৫ জনকে। পরে তিন দিনের রি’মান্ড চেয়ে গত রোববার আরিফুল ইসলামকে আদালতে পাঠান মা’মলার তদন্ত কর্মকর্তা মিরপুর থানার এসআই মো. শাহ আলম।

শুনানি শেষে সেদিন বিকেলে সিএমএম আদালতের হাকিম মঈনুল ইসলাম রি’মান্ড না’মঞ্জুর করে আরিফকে কারাগারে পাঠানোর নির্দেশ দেন।dainikamadershomoy